কম্পিউটারের কিছু মজার টিপসঃ পার্ট-২ - Graphic School

Blog

কম্পিউটারের কিছু মজার টিপসঃ পার্ট-২

আমরা এর আগের ব্লগে কম্পিউটারের ১০ টি টিপসের মধ্যে ৫ টি সম্পর্কে আলোচনা করেছি। আজকে আমরা বাঁকি ৫ টি টিপস নিয়ে আলোচনা করবো। চলুন তাহলে কথা না বাড়িয়ে শুরু করি।

6. কম্পিউটারের কিছু প্রয়োজনীয় শর্টকাটঃ

কম্পিউটারে কাজ করার সময় আমরা কিছু শর্টকাট কি ব্যবহার করে থাকি। আসলে শর্টকাট কি আমাদের কম্পিউটারে কাজ গুলো সহজ করে তোলে।

আমি নিম্নে কম্পিউটারের কিছু শর্টকাট কি তুলে ধরলাম। এগুলো জানা আপনি অফিসে কাজের সময় ব্যবহার করতে পারবেন বা কম্পিউটার রিলেটেড চাকরির ইন্টারভিউ দেয়ার সময় দেখিয়ে নিজের অভিজ্ঞতা জানান দিতে পারবেন।

  • Alt+F ব্যবহার করে, যেই প্রোগ্রাম ব্যবহার করছেন, তার file menu option পাবেন।
  • ALT+E দ্বারা যেই প্রোগ্রাম ব্যবহার করছেন তার edit option পাবেন।
  • F5 কিবোর্ডে প্রেস করে কম্পিউটার রিফ্রেশ করতে পারবেন।
  • যেকোনো ফাইল বা ফোল্ডার সিলেক্ট করে F2 pressকরলে, সরাসরি ফাইল রিনেম (file rename) অপশন আসবে।
  • Alt+Tab প্রেস করে Open করা প্রোগ্রাম গুলোর জন্য একটি অপশন পাবেন।
  • Ctrl+A প্রেস করে যেকোনো ফাইলের সব টেক্সট (text) একসাথে সিলেক্ট করতে পারবেন।
  • CTRL+S প্রেস করে যেকোনো ফাইল বা document শর্টকাটে সেভ করতে পারবেন।
  • Ctrl+C প্রেস করে যেকোনো সিলেক্ট করা অংশ কপি (copy) করতে পারবেন।
  • Ctrl+V যেকোনো কপি করা অংশ সহজে পেস্ট করার জন্য।
  • Ctrl+P যেকোনো document বা file প্রিন্ট করার শর্টকাট।
  • Alt+F প্রেস করে যেকোনো ওপেন থাকা প্রোগ্রাম সহজে close করুন।
  • Ctrl+Z ব্যবহার করে যেকোনো কিছু আগের অবস্থায় নিয়ে যেতে পারবেন।

আশা করি শর্টকাটগুলো আপনারা প্রয়োগ করার মাধ্যমে আয়ত্ত্ব করে নিবেন।

7. কম্পিউটারে যেকোনো ওয়েবসাইট ব্লক করুনঃ

আপনি যদি আপনার কম্পিউটার থেকে কোন ওয়েবসাইট ব্লক করে রাখতে চান তাহলে এই টিপসটি আপনার জন্য।

কোন ওয়েবসাইট ব্লগ করে রাখার জন্য আপনাকে প্রথমে আপনার কম্পিউটারের Win+R বাটন প্রেস করুন। এরপর স্ক্রিনে RUN ডায়ালগ ওপেন হবে। এখন, Run বক্সে কীবোর্ড ব্যবহার করে এই শব্দগুলো টাইপ করুনঃ %windir%\system32\drivers\etc. তারপর Ok অপশনে ক্লিক করুন। তারপর আপনার কম্পিউটার স্ক্রিনে কিছু ফাইল শো করবে। এখান থেকে আপনাকে Hosts নামের অপশনটি সিলেক্ট করতে হবে। এখানে আপনাকে Hosts ফাইলের ওপর মাউসের ডান বাটন দ্বারা ক্লিক করতে হবে। মাউসের ডান বাটন দ্বারা ক্লিক করার পরে Open With অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে। Open with এ ক্লিক করার পর notepad অপশন দেখবেন সেখানে ক্লিক করতে হবে। Hosts ফাইলটি নোটপ্যাড এ ওপেন করার পর আপনারা সেখানে কিছু লেখা দেখতে পাবেন। ফাইলটির নিচে, “Localhost name resolution” লেখার নিচের দিকে আপনারা কিছু IP address দেখবেন। এখন, আপনাদের এই IP address কপি করে নিয়ে একেবারে শেষে পেস্ট করতে হবে। কপি করা IP Address টি ফাইলের একদম শেষ দিকে পেস্ট করে তার পাশে যে ওয়েবসাইট ব্লক করতে চান তার URL address লিখে দিতে হবে।

কিন্তু ব্লক করা ওয়েবসাইটের www. এবং www ছাড়া দুই version ই টাইপ করতে হবে।

সব কাজ সম্পন্ন করার পরে hosts file টি save করুন এবং যেখান থেকে কপি করেছিলেন সেখানেই আবার পেস্ট করুন। তারপর দেখুন যে ওয়েবসাইটটি ব্লক করার চেষ্টা করছেন সে ওয়েবসাইটটি ব্লক হয়েছে কি না।

উপরিক্ত নিয়ম অনুসারে আপনি আপনার কম্পিউটার থেকে যেকোনো ওয়েবসাইট ব্লক করে রাখতে পারবেন।

8. পার্সোনাল ফাইল ও ফোল্ডার সুরক্ষিত রাখাঃ

আপনি কি জানেন, আপনার কম্পিউটার থেকে কোন প্রয়োজনীয় ফাইল কোনভাবে সংগ্রহ করে সেগুলোর অপব্যবহার করতে পারে। হ্যাঁ! রীতিমত অবাক হওয়ার মতোই কথা এটা।

কিন্তু এরও প্রতিকার রয়েছে। কেউ আপনার কম্পিউটার থেকে যে কোনো file বা folder দেখতে বা ওপেন করতে না পারে তার জন্য আপনি “encrypt content function” ব্যবহার করে দেখতে পারেন। যদি আপনি এই encrypt contents অপশন ব্যবহার করে যেকোনো file বা folder, encrypt করে রাখবেন তখন শুধু encrypt করা file বা folder কেবল আপনার কম্পিউটারেই ওপেন হবে আর অন্য কোন কম্পিউটারে সেইটা ওপেন হবেনা। মজা পেলেন তো?

মজা পাওয়ারই কথা। চলুন তাহলে মজার বিষয়টি বিস্তারিতভাবে জেনে আসি।

আপনি যে file বা folder এ encrypt content অপশন enable করতে চান, সেই ফাইল বা ফোল্ডারে right click করুন এবং তারপর নিচে properties অপশনে ক্লিক করুন। properties এ ক্লিক করার পর আপনারা advanced বলে একটি অপশন দেখবেন। তারপর advanced এ ক্লিক করবেন। advanced এ ক্লিক করার পর আপনারা কিছু অপশনস দেখবেন।

এই অপশনের নিচের দিকে – Encrypt contents to secure data বলে একটি অপশন দেখবেন, যেটাতে select করে বা click করে নিচে OK এবং তারপর Apply button এ ক্লিক করতে হবে।

আপনি যদি এই অপশনগুলো ফলো করে আপনার ফাইল ও ফোল্ডার encrypt করেন তাহলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ ডাটাগুলো সংরক্ষিত থাকবে।

9. কোন ফোল্ডার Hide করাঃ

আপনার কম্পিউটারে অবশ্যই কোন ফাইল বা ফোল্ডার রয়েছে যেগুলো আপনি সব সময় লুকিয়ে রাখতে চান। এর জন্য অনেকের কাছে হয়তো সাহায্য চেয়েছেন বা অনেক সফটওয়্যার ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু আপনি হয়তো জানেনা যে কার কোন সাহায্য বা কোন সফটওয়্যার ছাড়াই আপনার যেকোনো ফাইল লুকিয়ে রাখতে পারবেন। হ্যাঁ, আপনি ঠিকই জেনেছেন।

আসুন বিস্তারিত ভাবে জেনে আসি কিভাবে আপনি আপনার কম্পিউটার কোন ফোল্ডার Hide করবেন।

কম্পিউটারে যেকোনো ফোল্ডার Hide করার জন্য উক্ত ফোল্ডারে right click করে তারপর properties অপশনে ক্লিক করতে হবে। Properties অপশনে ক্লিক করার পর আপনার কম্পিউটার স্ক্রিনে General ট্যাবে Hidden বলে একটি অপশন দেখতে পারবেন। Hidden অপশনে ক্লিক করে এই অপশনটি সিলেক্ট করে নিতে হবে। তারপরে Apply বাটনে ক্লিক করতে হবে। তারপর দেখবেন আপনার সিলেক্টকৃত ফাইল Hidden হয়ে গেছে

10. কম্পিউটারে Hidden ফোল্ডার কিভাবে দেখবেনঃ

আপনার কম্পিউটারে যদি কোনো ফাইল বা ফোল্ডার Hide হয়ে থাকে তাহলে সেই ফোল্ডারকে show করানোর জন্য আপনাকে কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।

প্রথমে Hidden ফোল্ডার show করার জন্য আপনার প্রথমেই সেই drive open করতে হবে যেই ড্রাইভে ফাইল বা ফোল্ডার show করাতে চান।

তারপর আপনাকে Tool বার থেকে View অপশনে ক্লিক করতে হবে। View অপশনে ক্লিক করার পর দেখবেন, ডানদিকে আরো কিছু অপশন রয়েছে। সেগুলোর মধ্যে Options এবং তারপর change folder and file option এ ক্লিক করুন।

তারপর আপনার সামনে একটি ডায়ালগ বক্স show করবে। যেখানে file এবং folder সম্পর্কিত অনেক অপশন আপনি দেখতে পারবেন।

এরপর, বক্সের ওপরে view ট্যাবে ক্লিক করুন এবং নিচে থাকা show hidden files,folders and drives অপশনে ক্লিক করুন। তারপর, নিচে Apply এ ক্লিক করুন।

এখন দেখুন আপনি যে ফোল্ডারটি Hide করে রেখেছিলেন সেই ফোল্ডারটি আপনার কম্পিউটার স্ক্রিনে চলে এসেছে।

আমার এই ব্লগের টিপস অনুসারে আপনারা প্র্যাকটিস করলে টিপস গুলো আপনা আপনিই আপনার আয়ত্ত্বে চলে আসবে।

আশা করি আমার এই ব্লগটি আপনার অনেক ভালো লেগেছে এবং আপনি এখান থেকে অনেক উপকৃত হয়েছেন। আপনি চাইলে আমার এই ব্লগটি আপনার বন্ধুদের উদ্দেশ্যে শেয়ার করতে পারেন। এরকম আরও হেল্পফুল ব্লগ পড়ার জন্য গ্রাফিক স্কুলের ওয়েবসাইট ভিজিট করুন।

আজকের মতো এখানেই শেষ। ব্লগটি পড়ার জন্য আপনাদের অনেক অনেক ধন্যবাদ। সবাই ভালো থাকবেন। সুস্থ থাকবেন। আসসালামু আলাইকুম।

 

লিখেছেন

মোঃ রিয়াদ আহম্মেদ

Facebook Comment